হুমায়ূন আহমেদের উক্তি (humayun ahmed quotes in bengali)

You are currently viewing হুমায়ূন আহমেদের উক্তি (humayun ahmed quotes in bengali)
হুমায়ূন আহমেদের উক্তি (humayun ahmed quotes in bengali)

হুমায়ূন আহমেদের উক্তি সংখ্যা গুনে শেষ করা যাবেনা। কারন তিনি জীবিত অবস্থায় হাজার হাজার উক্তি করে গিয়েছেন। তাই আমরা এই পোস্টে শুধুমাত্র হুমায়ূন আহমেদের জনপ্রিয় এবং বিখ্যাত উক্তি গুলি তুলে ধরার চেষ্টা করলাম। যেগুলি আপনাদের খুব ভালো লাগবে।

জীবন নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের উক্তি

জীবন নিয়ে হুমায়ূন আহমেদ যে সমস্ত উক্তি গুলি করে গিয়েছেন তার মধ্য থেকে বিখ্যাত কিছু উক্তি হল-

1. “মানুষ হয়ে জন্মানোর সবচেয়ে বড় কষ্ট হচ্ছে মাঝে মাঝে তার সবকিছু পেছনে ফেলে চলে যেতে ইচ্ছা করে, কিন্তু সে যেতে পারে না। তাকে অপেক্ষা করতে হয়। কিসের অপেক্ষা তাও সে ভালমতো জানে না।” – হুমায়ুন আহমেদ

2. “সব মানুষের জীবনেই অপূর্ণতা থাকবে। অতি পরিপূর্ণ যে মানুষ তাকে জিজ্ঞেস করলে সেও অতি দুঃখের সঙ্গে তার অপূর্ণতার কথা বলবে। অপূর্ণতা থাকে না শুধু বড়ো বড়ো সাধক ও মহা পুরুষদের।” – হুমায়ুন আহমেদ

3. “এক সাথে কখনো সবাইকে সুখী করা সম্ভব না। আপনি কখনই পারবেন না। কাউকে না কাউকে অসন্তুষ্ট রাখতেই হবে। আর তাতেই মনে হয় নিজের গোটা পৃথিবীর একটা প্রান্ত অসম্পূর্ণ থেকে যায়।” – হুমায়ূন আহমেদ

4. “লাজুক ধরনের মানুষ বেশীর ভাগ সময়ই মনের কথা বলতে পারেনা। মনের কথা হড়বড় করে বলতে পারে শুধু মাত্র পাগলরাই। পাগলরা মনে হয় সেই কারণেই সুখী।” – হুমায়ুন আহমেদ

5. “সমুদ্রের জীবনে যেমন জোয়ার-ভাটা আছে, মানুষের জীবনেও আছে। মানুষের সঙ্গে এই জায়গাতেই সমুদ্রের মিল।” – হুমায়ুন আহমেদ

মানব জাতি অপেক্ষা পছন্দ করে না। তবু তাকে অপেক্ষা করতে হয়। ভালোবাসার জন্য অপেক্ষা, ঘৃনার জন্য অপেক্ষা, মৃত্যুর জন্য অপেক্ষা, আবার মুক্তির জন্যও অপেক্ষা।” – হুমায়ুন আহমেদ

6. “পৃথিবীতে এমন কোনো কাজ নেই যা করলে জীবন ব্যর্থ হয়। জীবন এতই বড়ো ব্যপার যে একে ব্যর্থ করা খুবই কঠিন।” – হুমায়ুন আহমেদ

7. “কিছু মানুষ জীবনে আসে ক্ষনিকের জন্য, হঠাৎ চলে যায় ঘুর্নিঝড়ের মতো, ধ্বংস করে দিয়ে যায় মনের ঘরবাড়িকে।” – হুমায়ুন আহমেদ

8. “সব মানুষের জীবনে কোন না কোন সময় অদ্ভূত পরিস্থিতির মুখোমুখি হতে হয়। তখন সে যুক্তির সিঁড়ি থেকে সরে দাঁড়ায়। নিজেকে সমার্পন করে রহস্যময়তার কাছে।” – হুমায়ুন আহমেদ

9. “একজন মানুষকে সত্যিকারভাবে জানার উপায় হচ্ছে তার স্বপ্নটা জানা।” – হুমায়ুন আহমেদ

10. “তুমি যখন কারো কাছ থেকে বিদায় নিয়ে যাত্রা শুরু করবে তখন পেছনে ফিরে তাকাবে না। পেছনে ফিরে তাকানোর অর্থ হলো মায়া নামক ভ্রান্তিকে প্রশ্রয় দেয়া।” – হুমায়ুন আহমেদ

“তুমি একটা খারাপ কাজ করেছো তার মানে তুমি একজন মানুষ। তুমি সেই খারাপ কাজটার জন্য অনুতপ্ত তার মানে তুমি একজন ভালো মানুষ।” – হুমায়ুন আহমেদ

11. “সূর্যোদয় দেখাটা অত্যন্ত জরুরী। এই দৃশ্যটি মানুষকে ভাবতে শিখায়। মন বড়ো করে।” – হুমায়ুন আহমেদ

12. “পাখি উড়ে গেলেও পলক ফেলে যায়, আর মানুষ চলে গেলে ফেলে রেখে যায় স্মৃতি।” – হুমায়ুন আহমেদ

13. “পৃথিবীতে অসংখ্য খারাপ মানুষ আছে, কিন্তু একজনও খারাপ বাবা নেই।” – হুমায়ুন আহমেদ

14. “যারা বেশী কথা বলে তারা মানুষ হিসেবে ভালো হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

15. “ভালো মানুষের রাগ থাকে বেশী। যারা মিচকা শয়তান তারা রাগে না। পাছায় লাথি মারলেও লাথি খেয়ে হাসবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

“কৌতুহল আমাদের সবারই আছে, কিন্ত কৌতুহল মেটানোর জন্যে প্রয়োজনীয় পরিশ্রমটি আমরা করি না। করতেও চাই না।” –হুমায়ুন আহমেদ

16. “আলো যেমন চারপাশ আলো করে তোলে, তেমনি একজন পবিত্র মানুষও তার চারপাশ আলো করে তুলবেই।” – হুমায়ূন আহমেদ

17. “কিছু মানুষ ধরেই নিয়েছে তারা যা ভাবছে তাই ঠিক। তাদের জগতটাই একমাত্র সত্যি জগত। এরা রহস্য খুঁজবে না। এরা স্বপ্ন দেখবে না।” – হুমায়ূন আহমেদ

18. “বেঁচে থাকার মতো আনন্দ আর কিছুই নেই। কত অপূর্ব দৃশ্য চারিদিকে। মন দিয়ে আমরা কখনো তা দেখি না। যখন সময় শেষ হয়ে যায়, তখনি শুধু হাহাকারে হৃদয় পূর্ণ হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

19. “দুঃসময়ে কোনো অপমান গায়ে মাখতে হয় না।” – হুমায়ুন আহমেদ

20. “যার মধ্যে অন্ধকার থাকে সে কখনো আলো নিয়ে খেলতে পারে না।” – হুমায়ুন আহমেদ

“পৃথিবীতে আনন্দ এবং দুঃখ সব সময় থাকবে সমান সমান। বিজ্ঞানের ভাষায় আনন্দের সংরক্ষণশীলতা। একজন কেউ চরম আনন্দ পেলে, অন্য জনকে চরম দুঃখ পেতে হবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

21. “মানুষ দুটো সময়ে খেলতে পছন্দ করে। শৈশবে এবং বৃদ্ধ বয়সে। শৈশবে খেলার সঙ্গী জুটে যায়, বৃদ্ধ বয়সে কাউকে পাওয়া যায় না। তখন খেলতে হয় নিজের সঙ্গে।” – হুমায়ুন আহমেদ

22. “কিছু কিছু মানুষ ভাগ্যকে নিজের হাতে গড়ে, আবার কারো কারো কাছে ভাগ্য আপনি এসে ধরা দেয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

23. “যে মানব সন্তান ক্ষুদ্র কামনা জয় করতে পারে, সে বৃহৎ কামনাও জয় করতে পারে।” – হুমায়ূন আহমেদ

24. “রুচির রহস্য ক্ষুধায়। যেখানে ক্ষুধা নেই সেখানে রুচিও নেই।” – হুমায়ূন আহমেদ

25. “যে মানুষ নিঃশব্দে হাসে তাহার বিষয়ে খুব সাবধান। দুই ধরনের মানুষ নিঃশব্দে হাসে- অতি উঁচু স্তরের সাধক এবং অতি নিম্নশ্রেণীর পিশাচ চরিত্রের মানুষ।” – হুমায়ুন আহমেদ

“মানুষ শুধু যে মানুষের কাছ থেকে শিখবে তা না। পশু পাখির কাছ থেকেও অনেক কিছু শেখা যায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

26. “আমরা মানুষের জটিলতা দেখে অভ্যস্ত, সারল্যকে আমরা ভয় করি। কারো ভেতরে ঐ ব্যাপারটি দেখলে থমকে যাই এবং আমাদের মনের একটি অংশ বলতে থাকে নিশ্চয়ই কোন একটা রহস্য আছে।” – হুমায়ুন আহমেদ

27. “এই পৃথিবীতে প্রিয় মানুষগুলোকে ছাড়া বেঁচে থাকাটা কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব কিছু নয়। কারো জন্য কারো জীবন থেমে থাকে না, জীবন তার মতই প্রবাহিত হবে। তাই যেটা ছিল না সেটা না পাওয়ায় থাক, সব পেয়ে গেলে জীবনটাও একঘেয়েমি হয়ে যায়। মনে রেখো পৃথিবীর সকল কষ্টই ক্ষণস্থায়ী।” – হুমায়ুন আহমেদ

হুমায়ুন আহমেদের প্রেমের উক্তি

প্রেম-ভালোবাসা নিয়ে হুমায়ুন আহমেদের উক্তি গুলি হল

1. “মানুষ কে ঘৃনা করার অপরাধে অতীতে কাউকে কখনো মৃত্যুদন্ড দেয়া হয়নি। কিন্তু মানুষ কে ভালোবাসার অপরাধে অতীতে অনেককেই হত্যা করা হয়েছে, ভবিষ্যতেও হয়তো হবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

2. “ভালোবাসা একটা পাখি। যখন খাঁচায় থাকে তখন মানুষ তাকে মুক্ত করে দিতে চায়। আর যখন খোলা আকাশে তাকে ডানা ঝাপটাতে দেখে তখন খাঁচায় বন্দী করতে চায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

3. “হয়তো আমরা আমাদের চারপাশের সবার কাছে থেকে প্রচুর ভালোবাসা পেয়ে থাকি, কিন্তু কোনো ভালোবাসা পিতামাতার ভালোবাসার মতো নয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

4. “কাউকে প্রচন্ডভাবে ভালোবাসার মধ্যে এক ধরনের দুর্বলতা আছে। নিজেকে তখন তুচ্ছ এবং সামান্য মনে হয়। এই ব্যাপারটা নিজেকে ছোট করে দেয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

5. “মাঝে মাঝে আত্মার সম্পর্ক রক্তের সম্পর্ককেও অতিক্রম করে যায়।” – হুমায়ূন আহমেদ

6. “তুমি যদি কাউকে হাসাতে পারো, সে তোমাকে বিশ্বাস করবে, সে তোমাকে পছন্দও করতে শুরু করবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

“কিছু কিছু পুরুষ আছে যারা রূপবতী তরুণীদের অগ্রাহ্য করে একধরনের আনন্দ পায়। সচরাচর এরা নিঃসঙ্গ ধরনের পুরুষ হয় এবং নারী সঙ্গের জন্যে তীব্র বাসনা বুকে পুষে রাখে।” – হুমায়ূন আহমেদ

7. “ভালোবাসার মাঝে হালকা ভয় থাকলে সেই ভালোবাসা মধূর হয়। কেননা, হারানোর ভয়ে প্রিয়য়জনের প্রতি ভালোবাসা আরো বেড়ে যায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

8. “সরাসরি চোখের দিকে তাকিয়ে কেউ মিথ্যা বলতে পারে না। মিথ্যা বলতে হয় অন্যদিকে তাকিয়ে।” – হুমায়ুন আহমেদ

9. “প্রেম হয় শুধু দেখা ও চোখের ভালো লাগা থেকে, রাগ থেকে প্রেম হয়, ঘৃণা থেকে প্রেম হয়, প্রেম হয় অপমান থেকে, এমনকি প্রেম হয় লজ্জা থেকেও। প্রেম আসলে লুকিয়ে আছে মানবসম্প্রদায়ের প্রতিটি ক্রোমসমে। একটু সুযোগ পেলেই সে জেগে উঠে।” – হুমায়ুন আহমেদ

10. “মানুষ তার আবেগ, ভালোবাসা, ঘৃনার জন্ম ও অবস্থানের জন্যে যে স্থান নির্ধারিত করেছে সেটা হল হৃদপিন্ড।” – হুমায়ুন আহমেদ

11. “অল্প বয়সের ভালোবাসা অন্ধ গন্ডারের মত। শুধুই একদিকে যায়। যুক্তি দিয়ে, বুদ্ধি দিয়ে, আদর দিয়ে এই গন্ডারকে সামলানো যায় না।” – হুমায়ূন আহমেদ

12. “করুণাও এক ধরনের ভালোবাসা, তবে তা ক্ষতিকারক ভালোবাসা। এই ভালোবাসা মানুষকে অসুস্হ করে দেয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

“পৃথিবীতে অনেক ধরনের অত্যাচার আছে। তবে ভালোবাসার অত্যাচার হচ্ছে সবচেয়ে ভয়ানক অত্যাচার। এ অত্যাচারের বিরুদ্ধে কখনো কিছু বলা যায় না, শুধু সহ্য করে নিতে হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

13. “গভীর প্রেম মানুষকে পুতুল বানিয়ে দেয়। প্রেমিক প্রেমিকার হাতের পুতুল হন কিংবা প্রেমিকা হয় প্রেমিকের হাতের পুতুল। দুজন এক সঙ্গে কখনো পুতুল হয় না। কে পুতুল হবে আর কে হবে সূত্রধর তা নির্ভর করে মানসিক ক্ষমতার উপর। মানসিক ক্ষমতা যার বেশী তার হাতেই পুতুলের সুতা।” – হুমায়ূন আহমেদ

হুমায়ুন আহমেদের কষ্টের উক্তি

কষ্ট নিয়ে হুমায়ুন আহমেদ অনেক উক্তি করেছেন। তার মধ্য থেকে বিখ্যাত কিছু উক্তি নীচে দেওয়া হল-

1. “হারিয়ে যাওয়া মানুষ ফিরে আসলে সে আর আগের মতো থাকে না। কেমন জানি অচেনা অজানা হয়ে যায়। সবই হয়তো ঠিক থাকে কিন্তু কি যেন নাই, কি যেন নাই।” – হুমায়ুন আহমেদ

2. “সবাই তোমাকে কষ্ট দেবে, কিন্ত তোমাকে এমন একজনকে খুঁজে নিতে হবে, যার দেওয়া কষ্ট তুমি সহ্য করতে পারবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

3. “জীবনে কিছু কিছু প্রশ্ন থাকে যার উত্তর কখনও মিলেনা, কিছু কিছু ভুল থাকে যা শোধরানো যায়না, আর কিছু কিছু কষ্ট থাকে যা কাউকে বলা যায়না।” – হুমায়ূন আহমেদ

4. “বাস্তবতা এতই কঠিন যে কখনও কখনও বুকের ভিতর গড়ে তোলা বিন্দু বিন্দু ভালোবাসাও অসহায় হয়ে পড়ে।” – হুমায়ুন আহমেদ

5. “যত্ন করে কাঁদানোর জন্য খুব আপন মানুষগুলোই যথেষ্ট।” – হুমায়ূন আহমেদ

“তুমি হাসলে সবাই তোমার সাথে হাসবে, কিন্তু তুমি কাঁদলে কেউ তোমার সাথে কাঁদবে না। মানুষকে কাঁদতে হয় একা একা।” – হুমায়ূন আহমেদ

6. “আমার হারিয়ে ফেলার কেউ নেই, কাজেই খুঁজে পাওয়ারও কেউ নেই, আমি মাঝে মাঝে নিজেকে হারিয়ে ফেলি, আবার খুঁজে পাই।” – হুমায়ূন আহমেদ

7. “বোকা মানুষ গুলো হয়তো অন্যকে বিরক্ত করতে জানে। কিন্তু কখনও কাউকে ঠকাতে জানে না।” – হুমায়ুন আহমেদ

8. “মানুষকে তোমার মনের দুর্বলতা বুঝতে দিওনা, কেননা মানুষ তোমার মনের দুর্বলতা জানলে তা নিয়ে খেলা করতে আনন্দ পাবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

9. “মনের তীব্র ব্যথা কমানোর একটি উপায় হচ্ছে কিছু লেখা। যে লেখা ব্যক্তিগত দুঃখকে ছড়িয়ে দেয় সবদিকে।” – হুমায়ুন আহমেদ

10. “তুমি আমার জন্যে দুফোটা চোখের জল ফেলেছ তার প্রতিদানে আমি জনম জনম কাঁদিব।” – হুমায়ুন আহমেদ

“যদি ভালো পেনসিল হতে না পারো কারোর সুখের গল্প লিখার জন্য, তাহলে ভালো রাবার হও। যেন তার দুঃখ মুছে দিতে পারো।” – হুমায়ুন আহমেদ

11. “পৃথিবীতে কিছু কিছু মানুষ সম্ভবত কষ্ট পাবার জন্যই জন্মায়। টাকা পয়সার কষ্ট নয়, মানসিক কষ্ট।” – হুমায়ুন আহমেদ

12. “অন্ধকার বলে কিছু নেই। আলোর অনুপস্থিতিকে অন্ধকার বলে। তেমনি কষ্ট বলেও কিছু নেই, সুখের সাময়িক অনুপস্থিতিকে কষ্ট বলে।” – হুমায়ুন আহমেদ

13. “হাসি সবসময় যে সুখের প্রকাশ তা নয়, আপনি কতটা দু:খ লুকাতে পারেন তাও বুঝায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

14. “আমি ঘর ছাড়িয়া বাহির হ্ইয়া জোছনা ধরিতে যাই। হাত ভর্তি চাদের আলো, ধরতে গেলেই নাই।” – হুমায়ুন আহমেদ

15. “মেঘের সঙ্গে মানুষের খুব মিল। মানুষ যেমন কাঁদে মেঘও কাঁদে। বৃষ্টি হচ্ছে মেঘের অশ্রু।” – হুমায়ুন আহমেদ

“কিছু কিছু মানুষ সত্যি খুব অসহায়। তাদের ভালোলাগা, মন্দলাগা, ব্যথা-বেদনা গুলো বলার মতো কেউ থাকে না। তাদের কিছু অবাক্ত কথা মনের গভীরেই রয়ে যায়, আর কিছু কিছু স্মৃতি- এক সময় পরিনত হয় দীর্ঘশ্বাসে।” – হুমায়ুন আহমেদ

16. “কষ্টের সাথে যাদের বসবাস রাতটা তাদের জন্য যে কি কষ্টের সেটা শুধু তারাই জানে। সারাদিন কষ্ট গুলো বুকের মাঝে চেপে রাখলেও রাতে যেন কোনো ভাবেই ঠেকানো যায় না। বুক ফেটে কষ্ট গুলো বের না হলেও, চোখ ফেটে বের হয়ে আসে অশ্রু।” – হুমায়ুন আহমেদ

মেয়েদের নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের উক্তি

মেয়েদের নিয়ে হুমায়ূন আহমেদের 10 টি উক্তি হল-

1. “একটা মেয়ের জন্য তোমাকে পারফেক্ট হওয়ার কোন প্রয়োজন নেই, কারন মেয়েরা কখনোই পারফেক্ট ছেলেদের সাথে প্রেম করে না।” – হুমায়ুন আহমেদ

2. “পুরুষদের আহত করার কৌশল মেয়েরা খুব তাড়াতাড়ি শিখে ফেলে এবং তা ব্যবহারও করে চমৎকার ভাবে। কেউ তার প্রতিভার বাইরে যেতে পারে না।” – হুমায়ুন আহমেদ

3. “প্রতিটা মেয়ে হয়তো তার স্বামীর কাছে রানী হয়ে থাকতে পারে না। কিন্তু প্রতিটা মেয়েই তার বাবার কাছে রাজকন্যা হয়ে থাকে।” – হুমায়ূন আহমেদ

“এই পৃথিবীতে প্রায় সবাই তার থেকে বিপরীত স্বভাবের মানুষের সাথে প্রেমে পড়ে।” – হুমায়ূন আহমেদ

4. “মেয়েরা হচ্ছে জন্মদাত্রী জননী। হাজার ভুল করলেও এদের উপর রাগ করতে নেই। এদের উপর রাগ করাটাই কাপুরুষতা।” – হুমায়ুন আহমেদ

5. “মা হল পৃথিবীর একমাত্র ব্যাংক, যেখানে আমরা আমাদের সব দুঃখ, কষ্ট জমা রাখি এবং বিনিময়ে পাই বিনাসূদে অকৃত্রিম ভালোবাসা।” – হুমায়ুন আহমেদ

6. “ছেলেদের জন্য পৃথিবীতে সব চাইতে মূল্যবান হল মেয়েদের হাসি।” – হুমায়ূন আহমেদ

“অতিরিক্ত রূপবতীরা বোকা হয়, এটা জগতের স্বঃতসিদ্ধ নিয়ম।” – হুমায়ুন আহমেদ

7. “যে নারীকে ঘুমন্ত অবস্থায় সুন্দর দেখায় সেই প্রকৃত রূপবতী।” – হুমায়ূন আহমেদ

8. “মায়ের অভিশাপ কখনো সন্তানের গায়ে লাগেনা। দোয়া গায়ে লাগে, অভিশাপ গায়ে লাগেনা। হাঁসের গায়ের পানির মত অভিশাপ ঝরে পড়ে যায়।” – হুমায়ূন আহমেদ

হুমায়ূন আহমেদের বিখ্যাত কিছু উক্তি

হুমায়ূন আহমেদের যত গুলি উক্তি আছে তা সবই প্রায় বিখ্যাত। তবে তার মধ্য থেকে বিখ্যাত কিছু উক্তি হল-

1. “আমি আমার নিজের দেশ নিয়ে অসম্ভব রকম আশাবাদী৷ আমাকে যদি একশোবার জন্মাবার সুযোগ দেয়া হয় আমি একশোবার এই দেশেই জন্মাতে চাইবো৷ এই দেশের বৃষ্টিতে ভিজতে চাইবো৷ এই দেশের বাঁশবাগানে জোছনা দেখতে চাইবো।” – হুমায়ুন আহমেদ

2. “কিছু কিছু সময় আসে যখন আমরা বিশ্বাস ও অবিশ্বাসের সীমারেখায় অবস্থান করি। তখন আমরা একই সঙ্গে দেখতে পাই ও পাই না। বুঝতে পারি ও পারি না। অনুভব করতে পারি ও পারি না। সে বড়ো রহস্যময় সময়।” – হুমায়ূন আহমেদ

3. “আমাদের সমস্যা হচ্ছে আমাদের যখন গুছিয়ে কথা বলা দরকার তখন টেলিগ্রাফের ভাষায় কথা বলি। আর যখন সারসংক্ষেপ বলা দরকার তখন পাঁচশ পৃষ্ঠার উপন্যাস শুরু করি।” – হুমায়ুন আহমেদ

4. “বাঙ্গালীকে বেশি প্রশংসা করতে নেই। প্রশংসা করলেই বাঙালি এক লাফে আকাশে উঠে যায়। আকাশে উঠে গেলেও ক্ষতি ছিল না, আকাশ থেকে থুথু ফেলা শুরু করে।” – হুমায়ুন আহমেদ

“আমরা জানি একদিন আমরা মরে যাবো। এই জন্যেই পৃথিবীটাকে এতো সুন্দর লাগে। যদি জানতাম আমাদের মৃত্যু নেই তাহলে পৃথিবীটা কখনোই এতো সুন্দর লাগতো না।” – হুমায়ুন আহমেদ

5. “পৃথিবীর সকল সৌন্দর্যই দূর থেকে দেখতে হয়, খুব কাছ থেকে দেখতে গেলেই সৌন্দর্য টা কমে যায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

6. “পৃথিবীতে আসার সময় প্রতিটি মানুষই একটি করে আলাদিনের প্রদীপ নিয়ে আসে। কিন্তু খুব কম মানুষই সেই প্রদীপ থেকে ঘুমন্ত দৈত্যকে জাগাতে পারে।” – হুমায়ুন আহমেদ

7. “আমাদের দেশের মানুষদের সবচেয়ে বড় সমস্যা হচ্ছে, যে কাজগুলো তারা করতে পারবে না, সেই কাজগুলোর দায়িত্ব তারা সবচেয়ে আগ্রহ করে নেবে।” – হুমায়ুন আহমেদ

8. “বিরাট খোলা মাঠে একা থাকা যায়, কিন্তু ছোট্ট একটা বাড়ীতে একা থাকা যায় না।” – হুমায়ুন আহমেদ

“খাদ্য দ্রব্য হাত দিয়ে স্পর্শ করাতেও আনন্দ আছে। সাহেবরা কাটাচামচ দিয়ে খায়। খাদ্য হাত দিয়ে ছোঁয়ার আনন্দ থেকে তারা বঞ্চিত।” – হুমায়ুন আহমেদ

9. “আদর্শ মানুষকে কেউ পছন্দ করে না। আদর্শ মানুষ ডিসটিল্ড ওয়াটারের মতো-স্বাদহীন। সমাজ পছন্দ করে অনাদর্শ মানুষকে। যারা ডিসটিল্ড ওয়াটার নয়, কোকাকোলা ও পেপসির মতো মিষ্টি কিন্তু ঝাঁঝালো।” – হুমায়ূন আহমেদ

10. “মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষগুলোই ধরণীর আসল রূপ দেখতে পায়।” – হুমায়ুন আহমেদ

11. “হ্যাঁ এবং না পৃথিবীর সবচেয়ে ছোট দুটি শব্দ কিন্তু এ শব্দ দুটি বলতে মানুষের সবচেয়ে বেশী ভাবতে হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

12. “যারা মিথ্যা বলে না তারা খুব বিপদজনক। তারা যখন একটা দুইটা মিথ্যা বলে তখন সেই মিথ্যাকে সত্য হিসাবে ধরা হয়। এক হাজার ভেড়ার পালের মধ্যে একটা নেকড়ে ঢুঁকে পড়ার মতো। একহাজার সত্যির মধ্যে একটা মিথ্যা। সেই মিথ্যা হবে ভয়ংকর মিথ্যা।” – হুমায়ূন আহমেদ

“সমস্ত জীব-জন্তু ও পশু-পাখির জীবনের বেশীর ভাগ সময় কেটে যায় নিরাপদ আশ্রয়ের সন্ধান করতে গিয়ে। মানুষের জন্যও এটা সত্যি। আমরাও নিরাপদ আশ্রয় খুঁজি।” – হুমায়ুন আহমেদ

13. “বস জাতীয় মানুষদের কাছে থেকে ভালো ব্যবহার পাওয়া যায় না। যখন পাওয়া যায় তখন মনে হয় কোথাও বোধহয় সমস্যা আছে।” – হুমায়ুন আহমেদ

14. “ব্যবহার না করলে বুদ্ধি কিন্তু নষ্ট হয়ে যায়। তোমাকে যদি একমাস একটা ঘন অন্ধকার ঘরে আটকে রাখা হয়, একবারও যদি সেই ঘরে আলো না জ্বালা হয়, তাহলে একমাস পর দেখা যাবে তুমি চোখে কিছুই দেখছো না। তুমি পুরোপুরি অন্ধ হয়ে গেছ। এটা বৈজ্ঞানিক সত্য।” – হুমায়ুন আহমেদ

15. “প্রতিটি দুঃসংবাদের সঙ্গে একটি করে সুসংবাদ থাকে।” – হুমায়ুন আহমেদ

16. “সত্য কথাগুলো সব সময় বক্তৃতার মতো শোনায়, মিথ্যাগুলো শোনায় কবিতার মতো।” – হুমায়ুন আহমেদ

“সব পাখি জোড়ায় জোড়ায় ওড়ে। পক্ষীকুলে শুধুমাত্র চিলকেই নিঃসঙ্গ উড়তে দেখা যায়। নিঃসঙ্গতার আনন্দের সাথে এই পাখিটার হয়তো বা পরিচয় আছে।” – হুমায়ুন আহমেদ

17. “সত্য কথাগুলো সব সময় বক্তৃতার মতো শোনায়, মিথ্যাগুলো শোনায় কবিতার মতো।” – হুমায়ুন আহমেদ

18. “আমাদের সমাজটা এমন যে, বেশীরভাগ শাস্তিই আমাদের বিনা কারনে পেতে হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

19. “বিপদ যখন আসে একটার পর একটা আসে। বিপদরা পাঁচ ভাইবোন। এদের মধ্যে খুব মিল। এই ভাইবোনরা কখনো একা কারো কাছে যায় না। প্রথম একজন যায়, তারপর তার অন্য ভাইবোনরা উপস্থিত হয়।” – হুমায়ুন আহমেদ

20. “আমার শৈশবটা কেটে গেছে দুঃখমেশানো আনন্দে-আনন্দে। যতই দিন যাচ্ছে সেই আনন্দের পরিমাণ কমে আসছে। আমি জানি, একসময় আমার সমস্ত পৃথিবী দুঃখময় হয়ে উঠবে। তখন যাত্রা করবো অন্য ভুবনে, যেখানে যাবতীয় আনন্দ বেদনার জন্ম।” – হুমায়ুন আহমেদ

হুমায়ূন আহমেদের উক্তি গুলি আপনাদের কেমন লাগলো তা আমাদের কমেন্ট করে জানাবেন এবং ভালো লাগলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন।।

Leave a Reply